নিজেই যদি নিজেকে ভালো না বাসেন, অন্য কেউ ভালোবাসবে ?

  • ফারজানা আক্তার 
  • ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৮

সকাল থেকে গার্লস গ্রুপে একটা মেয়েকে নিয়ে খুব আলোচনা হচ্ছে। মেয়েটা মোটামোটি গার্লস গ্রুপের পরিচিত মুখ। মেয়েটাকে অনেকেই চিনতো এবং জানতো। মেয়েটাকে নিয়ে সবার কমেন্টস দেখছিলাম। আমার প্রধান উদেশ্য ছিলো মেয়েটার ফেইসবুক আইডি লিংক খোঁজা। আমি নিজেই কমেন্টস করে আইডি লিংক চাইতে পারতাম কিন্তু ইচ্ছে করছিলো না। যাই হোক কমেন্টস দেখতে দেখতে আমার উদেশ্য সফল।  পেয়ে গেলাম সেই মেয়েটার আইডি লিংক। 

মেয়েটার আইডিতে ঢুকলাম। এবাউট থেকে শুরু করে যত কিছু পাবলিক আছে সব দেখলাম। ইভেন মেয়েটা তার প্রোফাইলে যে যে ভিডিও শেয়ার করেছে সেগুলোও দেখেছি।  ১৫ঘন্টা আগে মেয়েটা একটা ভিডিও শেয়ার করেছে যেটাতে ক্যাপশন লিখেছে, "I wish i had frnds like them. I don’t need gifts i need jst care love. I wish...." মেয়েটা কেয়ার লাভ চাচ্ছিলো যেটা আসলে সে পাচ্ছিলো না মে বি! মেয়েটার রিলেশনশিপ সিঙ্গেল দেয়া বাট গ্রুপে যারা তাকে পার্সোনালি চিনে তারা বলছে ম্যারিড ছিলো। আর তার প্রোফাইলে আমি একটা বাবুর কয়েকটা  ছবি দেখলাম, সেখানে লেখা নেই বাবু তার না অন্য কারো। তবে এক্টিভিটিস দেখে আমার তার বাবুই মনে হয়েছে। আমি আমার মনে হওয়ার কথা বললাম, কিন্তু নিশ্চিত নই। 

মেয়েটার প্রোফাইল ইন্ট্রোতে "আলহামদুল্লিয়াহ " লিখা। এখন আমি যদি মেয়েটার ফেইসবুক আইডি দিয়ে জাজ করি তাহলে মেয়েটাকে এভারেজ সফল এবং সুখী মেয়ে বলতে পারি। বুয়েটে পড়াশোনা করেছে, মেয়েটি একজন সফল ইউটিউবার এবং (নাম বললাম না ) কোন এক হিজাব ওয়ার্ল্ডের ব্র্যান্ড এম্বাসেডর। মেয়েটার সাজগোজ, পোশাক আশাকে বলতে পারি খুব ধনী পরিবার থেকে সে বিলং করে। তার মানে এইসব দিক থেকে সে সফল এবং তার ইন্ট্রোর মতো  "আলহামদুল্লিয়াহ " । আমি যদি খুব সংক্ষেপতে মেয়েটিকে দুঃখী বলি তাহলে বলতে হয় মেয়েটি কেয়ারিং লাভ খুঁজছিলো, সেটা না পেয়ে সে দুঃখী। মেয়েরা সবসময় একটা ছায়া খুঁজে বেড়ায়। মায়ার ছায়া, ভালোবাসার ছায়া, কেয়ারিং ছায়া। মেয়েটি হয়তো সেই ছায়ায় খুঁজছিলো। 

ডিপ্রেশনে যাওয়া ভালো কিন্তু ডিপ্রেশন থেকে উঠে আসা উত্তম, অনেক বেশি উত্তম। মেয়েটি পড়াশোনায় সফল হয়েছে, প্রফেশনে সফল হয়েছে কিন্তু ভালোবাসা খুঁজতে যেয়ে ডিপ্রেশনে পড়েছে এবং পরাজিত হয়েছে।  তার মতো এমন চার্মিং, মেধাবী, সুন্দর মেয়েটা যদি এক ডিপ্রেশানের কাছে এমনভাবে পরাজিত হয় তাহলে আসলে কিছু বলার ভাষা থাকে না। আমার খুব কষ্ট হচ্ছে তার মতো এমন একটি মেয়ে আমরা হারালাম, আবার রাগ লাগছে এই ভেবে যে ওই মেয়েটি ডিপ্রেশনকে চাইলেই কিক আউট করতে পারতো, তা না করে আত্মহত্যা!!!!!! মানতে পারছি না বোন, একদম মানতে পারছি !!! জীবনটা আমার, জীবনটা আমাদের। তাই এতো সহজে হাল ছেড়ে দেওয়া আমাদের উচিত না, নিজেই যদি নিজেকে ভালোবাসতে না পারলাম , অন্য মানুষ আমাকে ভালোবাসবে কেন ? সবার আগে নিজেকে ভালোবাসা জুরুরি, অন্যের ভালোবাসা পাওয়া নয় !

Leave a Comment